কম্পিউটারে মেমোরি কার্ড ব্যবহার করবেন কিভাবে জেনে নিন এখনি

 

বর্তমান সময়ে কিন্তু এখন অনেকের বাড়িতেই কম্পিউটার রয়েছে

আমাদের দৈনন্দিন জীবনের কাজ সহজ করে দেওয়ার জন্য 

কিন্তু এখন প্রায় মানুষেরাই কম্পিউটার ব্যবহার করে থাকেন,


কম্পিউটারে মেমোরি কার্ড ব্যবহার করবেন কিভাবে (How to use memory card in computer)




 বিভিন্ন কাজে তাদের কম্পিউটার ব্যবহার করেএকজনকে কাজে কম্পিউটার ব্যবহার করে তাদের কাজকে সহজ করে তুলছে। 

কেউ কেউ দেখা গেছে গ্রাফিক ডিজাইন কাজ করছে কেউ বা ওয়েব ডেভেলপমেন্ট কোর্সে কেউবা ডিজিটাল মার্কেটিং কেউবা সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন এর কাজ করছে অথবা কেউ ব্লগিং করছে  

{tocify} $title={Table of Contents}

আবার অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় যে অনেক মানুষ আছে যারা তাদের ব্যবসা-বাণিজ্য হিসাব-নিকাশ রাখার জন্য বা ব্যবসা-বাণিজ্যের যত কর্মী রয়েছে তাদের কিভাবে বেতন বন্ধ করবে তাদের কাজ কিভাবে হবেন তাদের নাম-ঠিকানা এই সমস্ত জিনিস যে রাজ গুলো রয়েছে সেগুলো তারা কম্পিউটারে নোট করে রাখা কিংবা সেভ করে রাখে 

আর এই যে কম্পিউটারে যে জিনিস গুলো সেভ করে রাখা লাগে তার জন্য কিন্তু একটা মেমোরি কার্ড দরকার হয়ে থাকে আর বর্তমানে কম্পিউটারে যে মেমোরি কার্ড ব্যবহার করা হয় অর্থাৎ কম্পিউটারে যে জায়গার দরকার হয় সমস্ত ফাইলগুলো রাখার জন্য সেটা নাম আছে কিন্তু হার্ডডিস্ক অথবা এসএসডি কার্ড 

মানুষের রয়েছে যারা হার্ডডিক্স ব্যবহার করে আবার অনেক মানুষই আছে যারা এসএসডি ব্যবহার করে থাকেন কিন্তু দুটোর কাছে কিন্তু বলতে গেলে 12 টার ভিতরে আপনারা আপনাদের যে সমস্ত ফাইলগুলো রাখার দরকার সবগুলো রাখতে পারবেন যে রকম ভাবে মোবাইলের ভেতরে আপনারা বিভিন্ন ফাইল অডিও ভিডিও গান এছাড়া জিনিসপত্রগুলো রাখেন সেগুলো রাখার জন্য কিন্তু আপনাদের একটা নাম্বার কেটে দরকার হয় থাকে আর কম্পিউটারের জন্য কিন্তু মেমোরি কার্ডে দরকার হয়না

 

অনেক মানুষ আছে যারা কম্পিউটার এর ভেতরে মেমোরি কার্ড ব্যবহার করে থাকেন আজকে আমরা সেই বিষয় নিয়ে আলোচনা করব যে আপনারা কিভাবে মোবাইলের মেমোরি কার্ড গুলো কম্পিউটারের মাধ্যমে ব্যবহার করতে পারবেন খুব সহজে এবং সেই মেমোরি কার্ড দিয়ে আপনারা কম্পিউটার থেকে অর্থাৎ কম্পিউটারের যে ফাইলগুলো রয়েছে ভিডিও অডিও গান বা কোন ছবি যদি আপনারা কম্পিউটার থেকে আপনাদের মোবাইল নিতে চান তাহলে সে ক্ষেত্রে আপনারা আপনাদের মোবাইলের মেমোরি কার্ডে কম্পিউটারে কিভাবে ঢুকাবেন বা কিভাবে ভরে কম্পিউটারের ফাইলগুলো মেমোরি কার্ডে নিবেন সেই বিষয়গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত আজকে আলোচনা করবো এই আর্টিকেলের ভিতরে


Read More - টুইটার মার্কেটিং কী? কেন এবং কিভাবে করতে পারবেন?


যদি এই বিষয় সম্পর্কে জানার জন্য আগ্রহী হয়ে থাকেন তাহলে আজকে রাতে সম্পূর্ণ মনোযোগ সহকারে পড়ুন আশা করি যে আপনি খুব সহজেই বুঝতে পারবেন যে কিভাবে আপনারা কম্পিউটার থেকে বিভিন্ন ফাইল ফটো ভিডিও গান অডিও গান যে সমস্ত দরকারি ফাইল সেগুলো আপনারা কিভাবে আপনাদের মোবাইল ফোনের মেমোরি কার্ড গুলো ট্রান্সফার করে নিতে পারবেন আপনাদের মেমোরি কার্ডে আপলোড করে নিতে পারবেন আপনারা যদি কম্পিউটারে মেমোরি কার্ড ব্যবহার করতে চান তাহলে সেক্ষেত্রে আপনাদের কোন কোন ডিভাইস কেনা লাগবে বা কি ডিভাইস থাকতে হবে  

 করে আপনারা যে ডিভাইসটির মাধ্যমে আপনাদের কম্পিউটার মেমোরি কার্ডটি কানেক্ট করতে পারবেন সেই ডিভাইসটির নাম কি এবং এই ডিভাইসটির প্রাইস কত এবং এই টিপসটি আপনারা কোথায় পাবেন এই বিষয়গুলো সম্পর্কে আজকের আর্টিকেল এর সমস্ত তথ্য আপনারা জানতে পারবেন তাহলে আসুন আর কথা না বাড়িয়ে সম্পর্কে বিস্তারিত সকল তথ্য জেনে নেই _

কম্পিউটারে কিভাবে মেমোরি কার্ড ব্যবহার করবেন? 

মেমোরি কার্ড ব্যবহার করার জন্য কিন্তু আপনাদেরকে সবার প্রথমে একটি ডিভাইস কিনতে হবে 

আর সেই ডিভাইসটি আপনারা আপনাদের কম্পিউটার এর পেছনে অর্থাৎ আপনাদের যে পিসি রয়েছে এটার পেছনে যে ইউএসবি পোর্ট রয়েছে সেখানে আপনাদের ইউএসবি পোর্টে লাগাতে হবে এবং তার ভিতরে অর্থাৎ আপনার ডিভাইসটি কিনবেন কম্পিউটার মেমোরি কার্ড ব্যবহার করার জন্য সেই ডিভাইসটির ভিতরে দেখতে পারবেন যে মেমোরি কার্ড ঢুকানোর জায়গায় রয়েছে সেখানে আপনাদেরকে মেমোরি পেছনে কানেক্ট করে নিতে হবে আর তাহলে কিন্তু আপনারা খুব সহজেই আপনাদের কম্পিউটারে মোবাইলের মেমোরি কার্ড ব্যবহার করতে পারবেন অনায়াসে 

ডিভাইসটির নাম কি এবং বিস্তারিত - 

এই ডিভাইসটির নাম হচ্ছে কার্ড রিডার আপনাদেরকে এই ডিভাইস টি কিনতে হবে এই ডিভাইস টি কেনার পরে আপনারা আপনাদের পিসির পিছনে ইউএসবি পোর্টে আপনাদের কানেক্ট করে নিতে হবে

কিভাবে এই ডিভাইসটি কানেক্ট করবেন ? 

এই ডিভাইস টি কেনার পরে আপনারা এবার বেন্ডি ভেস্টিজ সাথে মেমোরি কার্ড ঢুকানোর জায়গায় রয়েছে সেখানে আমাকে ঢুকিয়ে তারপর আপনাদের পিসি এর পিছনে ইউএসবি পোর্টের কানেক্ট করে নিয়ে আপনারা কম্পিউটার ওপেন করবেন তাহলে কিন্তু আপনাদের কম্পিউটারে মেমোরি কার্ডে ইন্সটল হয়ে যাবে কিংবা কানেক্ট হয়ে যাবে 


আর তারপর থেকে কিন্তু আপনারা আপনাদের কম্পিউটার এর ভেতরের যেকোন ফাইল মেমোরি কার্ডে ট্রান্সফার করে নিতে পারবেন অথবা আপনারা যদি চান কম্পিউটারে আপনাদের যে নয়নের কাছে মেমোরি কার্ড থেকে কোন ফাইল আপনারা আপনাদের কম্পিউটার নেবেন 

তাহলে সেটাও কিন্তু আপনারা খুব সহজেই করতে পারবেন এই ডিভাইসটির মাধ্যমে কানেক্ট করে কম্পিউটারের মেমোরি কার্ড নিতে পারবেন অথবা আপনারা যদি চান মেমোরি কার্ড থেকে কোন ফাইল কম্পিউটারে নেবেন তাহলে সেটা কিন্তু খুব সহজে করতে পারবেন এই ডিভাইসটির মাধ্যমে 

এই ডিভাইসটির দাম কত এবং এই ডিভাইস টি কোথায় পাবেন ? 

এই ডিভাইসটির দাম সাধারণত পাবে না দোকানেই আপনারা পেয়ে যাবেন যেখানে কম্পিউটার বিভিন্ন ইলেকট্রনিক পাতা বিক্রি করা হয় সেখানে আপনারা গেলে এই জিনিসটি পেয়ে যাবেন  

আমাদেরকে দোকানে গিয়ে বললেই হবে যে কার্ড রিডার লাগবে , কম্পিউটারে মেমোরি কার্ড ব্যবহার করার জন্য একটি কাঠের লাগবে সেটি আপনারা যদি গিয়ে বলেন তাহলে কিন্তু তারা আপনাদেরকে এই ডিভাইস টি দিয়ে দেবে আর এই ডিভাইসটির দাম শুনলে কিন্তু আপনার অপেরা অবাক হয়ে যাবেন এই ডিভাইসটির দাম কিন্তু সাধারণত ভাবে অনেক কম তুলনামূলক ভাবে বলা যায় যে অনেক কম  


Read More - ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং কিকেন কিভাবে করতে হয়জেনে নিন 

আপনার আইডি ভেস্টিজে কোন দোকানে তাদের একটা নিক প্রোডাক্ট বিক্রি করে কিংবা কম্পিউটার এর জিনিসপত্র যেখানে বৃদ্ধি করা হয় সেখানে গেলেই আপনার আইডি পাবেন আর এই ডিভাইসটির দাম কিন্তু 30 টাকা থেকে 50 টাকার মত আপনাদের কাছ থেকে নিতে পারে 

30 থেকে 50 টাকা এর বেশি এক টাকা হবে না এইরকমই আপনাদের কাছ থেকে নেবে

আশা করি যে বিষয়টা বুঝতে পেরেছেন এরপরে যদি কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে সেটা আমাদেরকে কমেন্ট করে জানাতে পারেন অথবা আমাদের ফেসবুক পেজ কিংবা ইনস্টাগ্রাম অথবা টুইটারের মাধ্যমে আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন 

আপনাদের যেকোন সমস্যা কিংবা যে কোন প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য আমরা সবসময় প্রস্তুত রয়েছি 

কেন ব্যবহার করবেন এই ডিভাইসটি এবং এর সুবিধা গুলো কি ? 

এই ডিভাইস টি ব্যবহার করলে কিন্তু আপনারা বিভিন্ন সুবিধা পাবেন যেমন এই ডিভাইসটির দাম কম এবং এটি আপনারা যে কোন ইলেকট্রনিক্স কম্পিউটার এর জিনিসপত্র যেখানে বিক্রি করায় সেখানে আপনারা পেয়ে যাবেন ডিভাইসটির দাম তুলনামূলকভাবে অনেক কম 

30 থেকে 50 টাকার ভেতরে আপনারা এই ডিভাইসটি পেয়ে যাবেন আর আপনারা যেহেতু মোবাইল ব্যবহার করেন অনেকেই বিশ্বের প্রায় সকল মানুষই এখন মোবাইলের করেন ছোট থেকে বড় সকলে 

সেজন্য কিন্তু বর্তমানে অনেকের মোবাইলে মেমোরি কার্ড থাকে আর তার জন্য কিন্তু আপনাদের কে কোন টাকা দিয়ে মেমোরি কার্ড কিনতে হবে না 

আপনারা যদি পেনড্রাইভ দিয়ে আপনাদের কম্পিউটার ব্যবহার করতে চাইতে না তাও পেনড্রাইভের মাধ্যমে বিভিন্ন অডিও ভিডিও ফোল্ডার বা কোন ইম্পর্টেন্ট দরকারি ফাইল গুলো আপনারা অন্য কাউকে শেয়ার করতে  চাইতেন তাহলে সে ক্ষেত্রে কিন্তু আপনাদেরকে একটি পেনড্রাইভ টাকা দিয়ে কিনে নিতে হতো  

আর আপনারা যদি এই ডিভাইস টি ব্যবহার করেন তাহলে কিন্তু আপনাদের মোবাইল ফোনে মেমোরি কার্ডের মাধ্যমে বিভিন্ন ফাইল শেয়ার করে যে কাউকে শেয়ার করতে পারবেন অর্থাৎ যে কারো কাছে আপনার এই ফাইলটি দিতে পারবেন যদি দিতে চান তাহলে 

মনে করেন যে আপনারা অডিও অথবা ভিডিও গান কিংবা দরকারি ফাইল আপনারা অন্য একজনকে শেয়ার করতে চাচ্ছেন তাহলে সেক্ষেত্রে কিন্তু যদি আপনাদের কম্পিউটার ইন্টারনেট না থাকে তাহলে এই কাজটা করতে পারবেন আর যদি আপনাদের এই সার্ভিসটি থাকে তাহলে কিন্তু আপনার নেটের মাধ্যমে যে কাউকে দরকারি ফাইল গুলো শেয়ার করা দরকার আপনারা অন্য কারো সাথে সেগুলো কিন্তু আপনারা খুব সহজেই করতে পারবেন  

আপনারা পেনড্রাইভ গেলে কিন্তু বেশ ভালো পরিমাণ টাকা খরচ করতে হতো আর এই ডিভাইসটি ব্যবহার আপনাদের কোন টাকা খরচ করা লাগবে না আশাকরি বুঝতে পেরেছেন এই ডিভাইস টি ব্যবহার করলে কিভাবে আপনারা উপকারিতা পাবেন এবং এর সুবিধাগুলো কি এবং এটা আপনারা কেন ব্যবহার করবেন বিষয়গুলো সম্পর্কে আশাকরি বিস্তারিত সকল কিছু বুঝে গিয়েছেন 

আমাদের শেষ কথা - 

তাহলে আজকে আমরা আমাদের এই আর্টিকেলের ভিতরে বিস্তারিতভাবে জানতে পারলাম যে কিভাবে আমরা আমাদের কম্পিউটারে মোবাইল ফোনের মেমোরি কার্ড গুলো ব্যবহার করব এবং কম্পিউটার থেকে কিভাবে এই ডিভাইসটি কানেক্ট করব এবং এর দাম কত , কোথায় পাবেন এই ডিভাইস টি দিয়ে কি কি কাজ করতে পারবেন 

সেই বিষয়গুলো সম্পর্কে কিন্তু আজকের এই আর্টিকেলের সকল কিছু জানতে পারলেন আর এরপরেও যদি কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে সেটা আমাদেরকে জানাতে পারেন, উত্তরঃ আপনাদের কে দিয়ে দেবো যদি কোন বিষয় বুঝতে না পারেন তাহলে আমাদেরকে জানাতে পারেন 

Admin

আমি একজন স্টুডেন্ট , বর্তমানে একাউন্টিং বিষয় নিয়ে অনার্স করতেছি, আর তার সাথে সাথে লেখালেখি করি। ফ্রী সময় যখন হয় তখন আমি যে বিষয়গুলো জানি সেই বিষয়গুলো সম্পর্কে আপনাদেরকে একটু আইডিয়া দেওয়ার চেষ্টা করি এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে।

Post a Comment

Previous Post Next Post